চাকরির জন্য সিভি লেখার নিয়ম

যেকোনো চাকরির জন্য সিভি লেখার নিয়ম জানার পূর্বে আমাদের জানতে হবে সিভির বেসিক। অর্থাৎ একটা সিভি লেখার জন্য কি কি তথ্য প্রয়োজন হতে পারে এবং কি কি ভুল থাকতে পারে কোথায় আমাদের ফোকাস দেয়া উচিত। সিভি লেখার সময় আমরা নিচের দেয়া বিষয়গুলো মাথায় রাখবো। চলুন শুরু করি।

{getToc} $title={সিভি লেখার নিয়ম}

সিভি লেখার নিয়ম

সিভি লেখার বেসিক

ক। ব্যাকরণগত ও শব্দগত ভুল করা যাবে না।
খ। সিভিটি অবশ্যই আমাদের A4 সাইজের পরিস্কার-স্বচ্ছ কাগজে লিখতে হবে।
গ। Tahoma, Arial, Calibri ফন্টে লেখা ভালো তাছাড়াও আরো কিছু ফন্ট আছে চাইলে আমরা ব্যবহার করতে পারি যেমন: টাইমস নিউ রোমান ফন্ট এর কাছাকাছি ফন্টগুলো।
ঘ। আমরা অতিরিক্ত উজ্জ্বল রং এর ব্যবহার না করব।
ঙ। ভাষাগুলো যথাযথ সম্ভব স্বচ্ছ ও সংক্ষিপ্ত করা চেষ্টা করব।
চ। ওহ হে, আমাদের সিভির লেয়ার ও মার্জিন ঠিক অবশ্যই রাখতে হবে।
ছ। কোন প্রকার ভুল বা মিথ্যা তথ্য দেওয়া যাবে না।
জ। রেফারেন্স হিসেবে কলেজের প্রধান শিক্ষক বা বিভাগীয় প্রধানের বা সহকারী অধ্যাপক যারা শিক্ষা-দিক্ষায় বা কর্মে উর্ধ্বে তাদের রেফারেন্স দিতে হবে।
ঝ। সিভির ভাষা আমাদের সাবলীল রাখতে হবে।
ঞ। সিভির ছবিটি সাম্প্রতিক তোলা ছবি ব্যবহার করতে হবে।
ট। বেশি ডিজাইন করব না A4 সাইজের কাগজে। যেমন:আন্ডারলাইন, বক্স, এবং বিভিন্ন লে-আউট ইত্যাদি।
ঠ। আমরা সিভির সকল ফ্রন্ট একই রকম রাখব। ভিন্ন সেকশনের জন্য আলাদা আলাদা ফ্রন্ট ব্যবহার করবো না।
ঢ। তাছাড়া একদম শুরুতে কারিকুলাম ভিটা বা CV ইত্যাদি লেখা পরিহার করব।
ড। সিভি ধরণ সবসময় আপডেট রাখার চেষ্টা করব।

একটি ভালো মানের সিভিতে ৩-৪ পৃষ্ঠার এর বেশি হওয়া উচিত নয়। সিভিতে যত কম পেইজে সুন্দর ফ্রেস এবং তথ্যবহুল দেওয়া যায় তত ভালো। তবে একটি ভালো মানের সিভিতে ১৫ টি গুরুত্বপূর্ণ থাকে, চলুন এক নজরে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় গুলো দেখে নেই:-

সিভির গুরুত্বপূর্ণ বিষয়

1. Curriculum Vita

সিভি সেটা আমাদের উল্লেখ করে দিতে হবে। কারণ আমাদের দেয়া তথ্য গুলোকে আমরা কিসের মাধ্যমে জমা দিব তা লিখে দিতে হবে। যেমন: সিভি নাকি রিসাম নাকি বাইয়ো ডাটা।

2. Brief Information

এই অংশে আমাদের যার নামে সিভিটি তৈরী হবে তার নাম, ঠিকানা, ইমেইল মোবাইল নাম্বার সংযোজন করতে হবে।

3. Photograph

Brief Information পাশেই সেটা ডানে বা বামে এক পাশে আমাদের ছবি ব্যবহার করতে হবে। ছবি নিয়ে একটা সতর্ক বার্তা তা হলো আমরা কখনোই কোনো ছবি স্ক্যান কপি দিব না সরাসরি নতুন ছবি তুলে দিব। কেন না আমাদের যখন ভাইবা বোর্ডে ডাকা হবে তখন আমরা সহজেই আমাদের উত্তর দিতে পারব।

4. Objective Of Career

এই অংশটুকু গুরুত্বপূর্ণ অনেকেই দেখা ইন্টারনেটা বা আগের জমাকৃত অনের তথ্য কপি পেষ্ট করে দেয়া হয় তাতে করে অন্যের তথ্য কপি থেকে যায়। বিজ্ঞাপনের সাথে মিল রেখে আপনার Objective Of Career দিবেন। অল্প কয়েক লাইল হলেই হবে যেমন এক দুই লাইন।

5. Educational Qualification

শিক্ষাগত যোগ্যতা ধারাবাহিক ভাবে দেয়া ভালো। অর্থাৎ সর্বশেষ ডিগ্রী থেকে এস, এস সি।

6. Job Experience 

চাকরির অভিজ্ঞতা থাকলে ভালো তবে যারা নতুন তাদের ক্ষেত্রে চাকরির অভিজ্ঞতা না দিলেও চলবে। তবে তা হবে বিজ্ঞাপন নিয়োগের উপর ভিত্তি করে।

7. Internship

বিশেষ করে যারা হাতে কলমে গ্রাজুয়েশন এর পূর্বেই ইন্টারশিপ করতে হয়েছে। যথা: প্রকৌশল বিদ্যা, এপ্লাইড সাইন্স, বিবিএ, এমবিএ, মার্কেটিং ইত্যাদি।

8. Training

যদি আপনি কোথাও টেনিং করে থাকেন তাহলে অবশ্যই দিবেন যদি তা আপনার সিভির বিষয়বস্তু মিল হলে অন্যথায় দেয়ার প্রয়োজন নেই।

9. Language Proficiency

যদি আপনার মাতৃভাষা ছাড়াও আরোও কোনো বিদেশি ভাষার দক্ষতা থাকে সেটা দিতে ভুলবেন না। আমরা সবাই কম বেশি বাংলা এবং ইংরেজি দিয়ে থাকি। এখানে আমাদের এমন ভাবে উপস্থাপন করতে হবে যে আপনি সেই ভাষাটায় দক্ষ কেমন। বিগেইনার নাকি কমিউনিকেটিভ নাকি ন্যাটিভ দক্ষ তা দিয়ে দিবেন।

10. Computer Skill

বর্তমান সময়ে Computer Skill প্রার্থী কে না চায় সকল নিয়োগ কর্তা এই অংশে বিশেষ নজর দিয়ে থাকে। তো আপনি কোন বিষয়ে দক্ষ তা উল্লেখ করতে ভুলবেন না কিন্তু।

11. Scholarship/Award

আপনার ভার্সিটি লাইফে যদি কোনো স্কলারশিপ বা এওয়ার্ড পেয়ে থাকেন তাহলে তা অনাআসেই দিতে পারো।

12. Personal Information

আপনার ব্যক্তিগত তথ্য গুলো অবশ্যই নিভুল দেয়ার চেষ্টা করবেন।

13. Reference

রেফারেন্স নিয়ে আমরা উপরেই আলোচনা করেছি। তাছাড়া যার রেফার দিব তার নাম, তার জব টাইটেল, তার ডিগ্রি, ইমেইল ও মোবাইলনাম্বার দিয়ে দিব।

14. Observation 

Observation সম্পূর্ণ সিভিটি ভালো করে কয়েকবার চেক করে দিবেন।

15. Signature and Date

অনেকই সিভিতে নিজের স্বাক্ষর করতে ভুলে যায়। ভুলে যাওয়াটা যেন আপনার বেলায় না হয়। এটা সিভিতে যদি কোনো স্বাক্ষর না থাকে তাহলে সেই সিভিটি মূল্যহীন হয়ে যায়। অবশ্যই সিভির শেষে আপনার স্বাক্ষর সাথে তারিখ দিয়ে দিবেন। নিচে কিছু চাকুরির সিভির নমুনা দেয়া হলো--

চাকুরির সিভির নমুনা

চাকরির জন্য সিভি লেখার নিয়ম

দুই পাতা বিশিষ্ট চাকরির সিভির নমুনা
চাকরির জন্য সিভি লেখার নিয়ম বাংলা

চাকরির সিভির নমুনা

Read More/- আরো পড়ুন:


TheSundor

প্রিয় পাঠকবৃন্দ দি সুন্দর এর পক্ষ থেকে আপনাকে জানাই শুভেচ্ছা এবং সালাম আসসালামু আলাইকুম আপনারা আপনি কেমন আছেন? নিশ্চই ভালো আর নতুন নতুন মজার তথ্য পেতে দি সুন্দরের সাথেই থাকুন। youtube linkedin instagram facebook twitter pinterest

Post a Comment

Previous Post Next Post