মানবিক বিভাগ থেকে কি হওয়া যায়?

প্রিয় শিক্ষার্থী বন্ধু,আমরা যারা মানবিক বিভাগে লেখাপড়ি করি, তাদের সকলের মনে একটাই প্রশ্ন ঘুরপাক খায় তা হল ‘মানবিক বিভাগ থেকে কি হওয়া যায়?’ আমি কি  মানবিক শাখা নিয়ে কি ভুল করেছি? কেন এমন প্রশ্ন তোমার মনে জাগে তা কিন্তু আমি জানি, আসলে তোমাকে তোমার স্কুলের টিচার বা স্কুল-কলেজের ছাত্র অথবা প্রতিবেশিরা তোমার সাথে খারাপ আচরণ করে, তারা বলে, ‘তকে দিয়ে কি হবে তুই ত আর্টসে পড়স্।’{getToc} $title={মানবিক বিভাগ থেকে কি হওয়া যায়?}

মানবিক বিভাগ থেকে কি হওয়া যায়
মানবিক বিভাগ থেকে কি হওয়া যায়

তাছাড়া কিছু কিছু স্কুল-কলেজের শিক্ষকদের দেখা যায় তারা কেবল, যারা বিজ্ঞান শাখা পড়ে তাদের কে নিয়েই বেশি ব্যস্ত থাকে তাদের ভবিষ্যৎ নিয়ে আলোচনা করে। তাছাড়া আমরা যারা অনাইনে বিভিন্ন সেমিনার দেখে থাকি সেখানে প্রায়ই বিজ্ঞান শাখার ছাত্র। কিন্তু কেন? তার কারণ ঐ সময়ে যে সকল ছাত্র মানবিক শাখায় পড়েছে তাদের বেলাও এখন যেমন করে তোমাকে আমাকে মানবিক শাখায় পড়ায় এক নির্যাতন করছে ঠিক তেমনটি তাদের বেলায় হয়েছে।

আসলেই কি মানবিক শাখা থেকে ভালো কিছু হওয়া যায় না। আমি তোমাকে নিশ্চিত করে বলতে পারি, তুমি তাদের কথাকে ভুলে গিয়ে তুমি তোমার একাডেমি পড়া নিয়ে ব্যস্ত থাকো, ভালো রেজাল্ট করো। তুমি যদি ডাক্তার, ইজ্ঞিনিয়ার, প্রকৌশলী অথবা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ে নাও পড়তে পারো, কিন্তু তবুও তুমি ঠিক তাদের মতন, তাদের সমপর্যায়ে ভালো মানের চাকরি করে তাদের মতো সম্মান অর্জন করতে পারবে। তাদের মতো ভালো টাকাও ইনকাম করতে পারবে তো এতো কিছু না ভেবে তুমি ভালো করে লেখাপড়া করো। বিশেষ করে তুমি ইংরেজিতে বেশি জোড় দেও আবার ইংরেজিতে জোড় দিতে গিয়ে যেন অন্য বাকি সাবজেক্ট এর প্রতি যেন হেলা না হয়।

মানবিক বিভাগ থেকে পড়লে তুমি কোন বিজ্ঞান বিষয় ভিত্তিক কোন প্রফেশনাল কাজে নিজেকে যুক্ত করতে পারবে না। তুমি শুধু অফিশিয়াল পড়ে যুক্ত হতে পারবে, এই অফিশিয়াল নিয়ে নিচে বিস্তারিত আলোচনা করব ঘাবড়াবেনা কেমন।

বিজ্ঞান বিষয় ভিত্তিক প্রফেশনাল কি? বিজ্ঞান বিষয় ভিত্তিক প্রফেশনাল হল সেটা যেখানে তুমি ডাক্তার, ডাক্তার, ইজ্ঞিনিয়ার, প্রকৌশলী, কৃষি অফিসার, মৎস্য অফিসার, এই সকল বিষয়ে শিক্ষক, পাইলট, আরো অনেক কিছু যা তুমি ধীরে ধীরে অনুধাবণ করতে পারবে। তো এবার দেখা যাক তুমি মানবিক বিভাগ থেকে কি হতে পারবে?

{alertSuccess}আরো পড়ুন: মেয়েদের জন্য কোন চাকরি ভালো?

মানবিক বিভাগ থেকে কি হওয়া যায়

বিসিএস ক্যাডার

আমরা যেটা কে প্রথমে রাখবো তা হলো বিসিএস ক্যাডার(ফরেন, এডমিন, কর, পুলিশ, শিক্ষক, আনসার ক্যাডার, পরিবার পরিকল্পনা, তথ্য এবং অন্যান্য)। মানবিক শাখা থেকে পড়লে তুমি নিশ্চিত বিসিএস ক্যাডারে যুক্ত হতে পারবে। তুমি যদি চাও তাহলে যে কোন ক্যাডার হতে পারবে কেবল মাত্র টেকটিক্যাল ক্যাডার ব্যতিত।

ব্যারিস্টার

তুমি মানবিক শাখায় পড়লে ব্যারিষ্টার হতে পারবে সেজন্য তোমাকে আইন বিষয় নিয়ে পড়াশুনা করতে হবে। তারপর তুমি একজন ল ইয়ার হতে পারবে। এডভোকেট হতে পারবে। আইন সম্পর্কিত যতগুলো পেশা আছে সব গুলোতেই তুমি চাকরি করতে পারবে।

শিক্ষক

সবচেয়ে সম্মানীত পেশা হলো শিক্ষকতা করা। শিক্ষকতা করলে তোমার দ্বারা তৈরী হবে শত শত ডাক্তার, ইজ্ঞিনিয়ার, ল ইয়ার, শিক্ষক, বিসিএস ক্যাডার ইত্যাদি। শিক্ষকতা পেশায় থাকলে তুমি রোজ রোজ ছাত্রদের কাছ থেকে সালাম পাবে। সকলেই তোমাকে স্যার স্যার বলে ডাকবে। তাছাড়া আরো অনেক কিছু তা তোমার আমার মনে হয় একটা ভালো ধারণা আছে। তাছাড়া শিক্ষকতা সম্পর্কিত সকল জবই তুমি করতে পারবে।

কোম্পানিতে জব

তাছাড়া তুমি মানবিক শাখায় পড়লে অনেক কোম্পানিতে জব করতে পারবে, যারা কিনা তোমাকে ভালো বেতন ও দিবে। তোমার ইমান যদি মজবুত হয় এমনকি ভালো একটা পজিশনেও যেতে পারবে।

সেনাবাহিনী বা পুলিশ

তুমি এসএসসি বা এইচ এসসি পাশ থাকা কালীন তুমি সেনাবাহিনী বা পুলিশবাহিনী যোগ দিতে পারবে। যদি তোমার উচ্চতা ঠিকঠাক নিয়োগকর্তার চাহিদা অনুযায়ী হয়।

তাছাড়া তুমি আরোও অনেক পেশায় নিজেকে জড়িয়ে নিতে পারো যেমন, ঔষধের দোকানে থাকতে পারো, বিভিন্ন ব্যবসার হিসাব রাখতে পারো। কোচিং পরিচালনা করতে পারো, অনলাইনে কাজ করে ইনকাম করতে পারো।

তবে বর্তমান সময়ে চাকরি পাওয়া অনেকেই মনে করে সোনার হরিণের মতন তাই অনেকেই নিজেকে তার স্থানীয় এলাকায় বিভিন্ন কাজে জীবন জীবিকা পরিচালনা করে। তার মধ্যে সবচেয়ে জনপ্রিয় হলো অনলাইনে ইনকান করা।

পরিশেষে এইটুকু বলা যায়,

কখনো হাল ছেড়ে দিয়ো না, পরিশ্রম করবে ভাগ্য পরিবর্তন হবে। পরিশ্রম করবে না ভাগ্য পরিবর্তন হবে না। তুমি যেই শাখায় পড় না কেন নিজেকে সৎ, পরিশ্রমী হিসেবে গড়ে তোলো দেখবে জীবনে উন্নতি করতে পারবে। তাহলে তুমি কি তোমার প্রশ্নে উত্তর পেলে, ‘মানবিক বিভাগ থেকে কি হওয়া যায়?’ যদি তোমার আরো কিছু জানা থাকে তাহলে কমেন্ট করে জানাও, চেষ্টা করব যত তাড়াতাড়ি সম্ভব তোমার উত্তর দিতে।

এই পোষ্টটি পড়ে কেমন লাগলো, যদি ভালো লাগে তাহলে শেয়ার করো আর যদি আরো কিছু সংযোজন করতে হয়ে তাহলে কমেন্টে জানিও কিন্তু।

TheSundor

প্রিয় পাঠকবৃন্দ দি সুন্দর এর পক্ষ থেকে আপনাকে জানাই শুভেচ্ছা এবং সালাম আসসালামু আলাইকুম আপনারা আপনি কেমন আছেন? নিশ্চই ভালো আর নতুন নতুন মজার তথ্য পেতে দি সুন্দরের সাথেই থাকুন। youtube linkedin instagram facebook twitter pinterest

Post a Comment

Previous Post Next Post